সংবাদ শিরোনাম :
সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী গ্রেপ্তার সুগন্ধা পয়েন্টে উচ্ছেদ হওয়া অর্ধশতাধিক দোকান থেকে কোটি কোটি টাকা ভাগবাটোয়ারা করেছে প্রভাবশালীরা শহরে প্রধান সড়ক প্রশস্ত করতে দুই পাশের সীমানা নির্ধারণ কাজের উদ্বোধন উত্তর নলবিলায় গৃহবধূকে খুন করে মাটিতে পুঁতে রাখার ঘটনার নেপথ্যে হাসান বশির পরিবার রাত পোহালেই আলোচিত কুতুপালং ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচন জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শিশু একাডেমি আয়োজিত শেখ রাসেলের ৫৬ তম জন্মবার্ষিকী পালিত শহরের সাহিত্যিকা পল্লীর গরুর হালদা এলাকায় দু’টি পাহাড় কেটে তুলার গোডাউন ও ভবন নির্মাণ সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রীসহ দুদকের জালে ৮ এমপি উচ্ছেদ আতঙ্কে লিংকরোড বৃহত্তর মুহুরীপাড়ার ৫ শতাধিক পরিবার রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের যোগানদাতা কে?
ঈদগাঁহ থানাকে দালালমুক্ত ও জনবান্ধব করার দাবি উঠছে

ঈদগাঁহ থানাকে দালালমুক্ত ও জনবান্ধব করার দাবি উঠছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পুলিশ আর জনগণ অবিচ্ছেদ্য। পুলিশ প্রজাতন্ত্রের সেবক হিসেবে রাষ্ট্রের শান্তিশৃঙখলা বজায় রেখে জনগণের জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের কাছে দায়বদ্ধ।

সাংবিধানিকভাবে পুলিশ ও জনগণ এর সম্পর্ক এক অটুট ভিত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত।

আবহমানকাল ধরে জনতা ও পুলিশের মধ্যকার সেই সম্পর্কের মাঝপথে সৃষ্টি হয়েছে অদৃশ্য অস্পৃশ্য মতলববাজ পেটি বুর্জোয়া শ্রেণী।

কাজের ভিন্নতায় সময়ের বিবর্তনে সেই সমাজের কেউ পরজীবি,কেউ টাউট, কেউ দালাল,কেউ বাটপার। এই নামীয় চরিত্রগত বৈশিষ্ট্য এক পর্যায়ে পুলিশের পোষাকী চরিত্রকে ছাপিয়ে মানবিক চরিত্রও গ্রাস করে সমাজে নিন্দা ও ভৎসনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে।

কক্সবাজার জেলার বৃহত্তম জনপদ ঈদগাঁহ’র পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র যা বর্তমানে পূর্ণাঙ্গ থানা হিসেবে প্রশাসনিক যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে। এর ভেতরবাহির কিংবা অন্দরমহল বা সদরমহলে দীর্ঘদিন ধরে জগদ্দল পাথরের মত সেবাপ্রত্যাশী জনগণের উপর চেপে বসে আছে বিশেষ শ্রেণীর দালাল।

চাপে কিংবা তাপে সময় কিংবা অসময়ে ওই টাউট বা দালালদের সংঘবদ্ধচক্রটি নিজের রুপ অবস্থান পরিবর্তন করে ভিন্ন ভিন্ন রুপধারণ করলেও আড়ালে এদের প্রভাবপ্রতাপে জিম্মি থেকেছে সাধারণমানুষ।

১৯৯৬ সালে ঈদগাঁহ পুলিশ ফাঁড়ি হিসেবে কক্সবাজার সদর থানা এই জনপদে পুলিশী কার্যক্রম শুরু করে। বিশেষ করে ঈদগাঁহ ও তার আশেপাশে ক্রমবর্ধমান চুরি,ডাকাতি,অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়, চাঁদাবাজি’সহ অপরাধমূলক কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশপ্রশাসন বিকেন্দ্রিকরণের অংশ হিসেবে ওই পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপিত হয়েছে।

পরবর্তীতে ঈদগাঁহ এলাকার পরিধি, পরিস্থিতি,পরিবেশ ও জনসংখ্যা বিবেচনায় ২০০২ সালে এটি পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে উন্নীত হয়। বাড়ে পুলিশের জনবল,কার্যপরিধি। সেই সাথে শক্তপোক্ত শিকড় গেঁড়ে বসে দালালনামীয় একধরণের পরজীবী।

পুলিশ তদন্তকেন্দ্র:
ঈদগাঁহ বাজারের সদরগেটে (ঈদগাঁহ ইউপি ভবনে) থাকাকালিন দালাল শ্রেণীর পরজীবিগুলি প্রকাশ্যে জনসম্মুখে নির্লজ্জভাবে চালিয়েছে তাদের অপতৎপরতা।
পুলিশ আর দালাল অনৈতিক মোহাব্বতে সাধারণ মানুষ হয়েছে নিগৃহিত।
শাহ পেঠান ফকিরের মাজার এলাকায় নতুন ভবনে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র স্থানান্তরিত হলে নতুনরূপে আবির্ভূত হয় ওই সংঘবদ্ধচক্রটি। প্রকাশ্যে অপ্রকাশ্যে চলে এদের রহস্যময় কাযক্রম।
জনগণ মুক্তি চায়। চায় জনবান্ধব থানা পুলিশ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪১,৪৮৪,৬৩৪
সুস্থ
৩০,৯১০,৮৭৯
মৃত্যু
১,১৩৬,৩৩৫
সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪

একাত্তর পত্রিকার প্রতিনিধি সভা

dainikcoxsbazarekattor.com © All rights reserved