1. coxsbazarekattorbd@gmail.com : Cox's Bazar Ekattor : Cox's Bazar Ekattor
  2. coxsekttornews@gmail.com : Balal Uddin : Balal Uddin
ইসলামের দৃষ্টিতে পরিবেশ প্রকৃতি সুন্দর রাখার গুরুত্ব - Cox's Bazar Ekattor | দৈনিক কক্সবাজার একাত্তর
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৩৫ অপরাহ্ন
Advertisement

ইসলামের দৃষ্টিতে পরিবেশ প্রকৃতি সুন্দর রাখার গুরুত্ব

  • আপলোড সময় : শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২২৩ জন দেখেছেন
Advertisement

কক্সবাজার ৭১ ডেস্ক:

ইসলাম পবিত্র ধর্ম। পবিত্রতা ইমানের অঙ্গ। আল কোরআনের সামগ্রিক বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, মহান আল্লাহতায়ালা যেসব উদাহরণ দেখিয়ে মানুষকে ইমান আনার জন্য উৎসাহ দিয়েছেন, উদ্বুদ্ধ করেছেন এবং আল্লাহর আয়াত বা নিদর্শন বলে উল্লেখ করেছেন, এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক হলো প্রকৃতি ও পরিবেশের উপাদান। সুরা মুলকে একটি উদাহরণ দিতে গিয়ে মহান আল্লাহতায়ালা বলেছেন, ‘খুঁটিহীন আকাশ আমি ঝুলিয়ে রেখেছি, পাখিকে বাতাসে ভাসিয়ে রেখেছি। এসব নিদর্শন দেখার পরও কি অবিশ্বাসীরা ইমান আনবে না?’ সুরা তারিকে আল্লাহতায়ালা কাফেরদের একটি জটিল প্রশ্নের খুব সহজ উত্তর দিতে গিয়ে পরিবেশের উদাহরণ দিয়েছেন। আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘জমিন যেমন চৌচির হয়ে ফেটে যাওয়ার পর আবার বৃষ্টির ছোঁয়ায় সজীব হয়ে ওঠে, তেমনি মানুষও মরে যাওয়ার পর তাকে আবার জীবিত করে তোলা হবে।’

Advertisement

প্রকৃতির ভারাসাম্য রক্ষার বিষয় উল্লেখ করে সুরা কাফে আল্লাহ বলেন, ‘আমি জমিনকে বিস্তীর্ণ করেছি এবং তার ওপর পাহাড় গেড়ে দিয়েছি। আর তাতে উৎপন্ন করেছি নয়নাভিরাম সব উদ্ভিদরাজি।’ সুরা নাহলে মহান আল্লাহতায়ালা বলেছেন, ‘আমি পৃথিবীর ওপর পাহাড়কে পেরেকের মতো গেড়ে দিয়েছি, যাতে এটা তোমাদের নিয়ে নড়ে না ওঠে।’ পবিত্র আল কোরআনের পাতায় প্রকৃতি-পরিবেশের এমন উদাহরণ অনেক আলোচনা রয়েছে।
ইসলাম পরিবেশ-সংরক্ষণ এবং পরিচ্ছন্ন পরিবেশের প্রতি সুবিশেষ জোর দিয়েছে। সুনান গ্রন্থগুলোতে পরিবেশ সুন্দর রাখা, প্রাকৃতির ভারসাম্য বজায় রাখার ব্যাপারে অসংখ্য হাদিস এসেছে। এক হাদিস শরিফে রসুল (সা.) বলেছেন, ‘বসতঘর থেকে দূরে টয়লেট বানাও। এতে করে রোগ-জীবাণু ছড়াতে পারবে না।’ আরেক হাদিসে রসুল (সা.) বলেছেন, ‘ছায়াদার-ফলদার গাছের নিচে পেশাব-পায়খানা করো না। এতে করে পথচারীদের কষ্ট হবে, মানুষ এসে বিশ্রাম করতে পারবে না।’
পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার ব্যাপারে রসুল (সা.) কত বেশি গুরুত্ব দিয়েছে দেখুন, রসুল (সা.) সাহাবিদের কোনো যুদ্ধে পাঠানোর আগে নসিহত করে বলতেন, বিজিত অঞ্চলের কোনো গাছপালা ধ্বংস করে পরিবেশ নষ্ট করবে না।’ বিনা কারণে গাছের পাতা ছেঁড়ার কারণে একজন সাহাবিকে তিরস্কার করেছিলেন রসুল (সা.)।

পরিবেশে যেন রোগ-জীবাণু না ছাড়ায় তাই রসুল (সা.) উম্মতকে হাঁচি দেওয়ার আগে মুখ ঢাকা শিখিয়েছেন। হাতে যেন জীবাণু না লাগে তাই রসুল (সা.) শৌচকার্যের আগে ঢিলা নেওয়া পবিত্র হওয়া শিখিয়েছেন। আল কোরআন-সুন্নাহে নির্দেশিত পরিবেশ সংরক্ষণের বিষয়গুলো আমরা জানব এবং আমাদের জীবনে পুরোপুরি মেনে চলব ইনশা আল্লাহ। তাহলে আমরা সুস্থ ও সুন্দর জীবনযাপন লাভ করব, করোনাভাইরাসের মহামারীসহ সব অসুখ-বিসুখ থেকে আমরা দূরে থাকব। আল্লাহতায়ালা আমাদের সবাইকে আমল করার তৌফিক দিন। আমিন।

Advertisement

লেখক : খতিব, মনিপুর বায়তুল আশরাফ (মাইকওয়ালা) জামে মসজিদ মিরপুর, ঢাকা।

ডিসি৭১/এমইউএন

Advertisement

শেয়ার করতে পারেন খবরটি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো বিভিন্ন খবর দেখুন
Advertisement
Advertisement

Sidebar Ads

ডাঃ কবীর উদ্দিন আহমদ

Advertisement
© All rights reserved © 2015 Dainik Cox's Bazar Ekattor
Theme Customized By MonsuR