1. coxsbazarekattorbd@gmail.com : Cox's Bazar Ekattor : Cox's Bazar Ekattor
  2. coxsekttornews@gmail.com : Balal Uddin : Balal Uddin
পিআইও অফিসের কর্মচারি নন, তবুও কাজ হয় জিয়াবুলের ইচ্ছায় - Cox's Bazar Ekattor | দৈনিক কক্সবাজার একাত্তর
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:৪৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঘুষ দুর্নীতির অভয়ারণ্য কক্সবাজার রেজিষ্ট্রি অফিস! বেতন ছাড়া চাকুরী: প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে এঞ্জেল টাচ থাই স্পা ও স্মার্ট থাই স্পাতে চলছে দেহ ব্যবসা আরাকান আর্মির গুলিতে আহত বাংলাদেশি জেলের মৃত্যু বেনজীর আহমেদ ও তাঁর স্ত্রী-সন্তানদের দুদকে তলব বেনজীরের কোম্পানি-ফ্ল্যাট ক্রোকের নির্দেশ ঘূর্ণিঝড়ের মহাবিপদ সংকেতেও সৈকতে আনন্দে আত্মহারা পর্যটকরা দেশের সর্বোচ্চ ইয়াবার চালান জব্দ করেও পিপিএম পদক পাননি পনেরোবারের শ্রেষ্ঠ ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী কক্সবাজারে ৯ উপজেলায় ৬ টিতে নির্বাচন সম্পন্ন পুলিশ প্রশাসনের ভুমিকা সন্তোষজনক চকরিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আজ: মাঠ জরিপে এগিয়ে সাবেক সাংসদ জাফর ঈদগাঁও উপজেলা নির্বাচন আজ : ভোটারদের ভোটের গণজোয়ারে জয়ের পথে আবু তালেব

পিআইও অফিসের কর্মচারি নন, তবুও কাজ হয় জিয়াবুলের ইচ্ছায়

  • আপলোড সময় : শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৮৬ জন দেখেছেন

বিশেষ প্রতিবেদক”
কক্সবাজার জেলার পেকুয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরে (পিআইও অফিস) বেতন ভাতা বিহীনভাবে কর্মরত, পিআইও অফিসের’ অঘোষিত রাজা’ জিয়াবুলকে নিয়ে নানা প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। গত ৭/৮ বছর ধরে পেকুয়া পিআইও অফিসে বেতন ভাতাহীনভাবে জগদ্দল পাথরের পাথরের মতো কর্মরত রয়েছে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মাতবর পাড়া গ্রামের জিয়াবুল! শ্রমিক দল নেতা জিয়াবুল পেকুূয়া উপজেলায় যখন যে পিআইও আসে, তাঁকেই ম্যানেজ করে পিআইও অফিস কেন্দ্রীক নানান অপকর্মের সাথে জড়িয়ে পড়ে। বিশেষ করে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচীতে পেকুয়া উপজেলার সাত ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রকল্প কমিটির লোকজনের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অহরহ অভিযোগ রয়েছে।
প্রাপ্ত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, পেকুয়ার পিআইও অফিসে বেতন-ভাতা বিহীন কর্মরত থাকলেও জিয়াবুল পিআইও অফিস নিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন প্রকল্প থেকে বেপরোয়া ঘুষ বাণিজ্য ও ত্রাণ চুরি করে এখন কোটিপতি! তার ব্যাংক হিসেবে রয়েছে লাখ লাখ টাকা! পেকুয়া বাজারে অবস্থিত বেসরকারী একটি হাসপাতালের শেয়ারও কিনেছেন। জিয়াবুল তার গ্রাম মাতবর পাড়া থেকে কর্মসৃজন প্রকল্পের একাধিক শ্রমিকের টাকাও লুটে নিচ্ছে বেশ কয়েক বছর ধরে।
এছাড়াও পেকুয়া উপজেলায় বিগত অর্থ বছরে দূর্যোগ সহনীয় ঘরের তালিকা তৈরীর সময় বিভিন্ন উপকারভোগীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়েছেন জিয়াবুল।
পেকুয়া পিআইও অফিস কেন্দ্রীক নানান অনিয়ম-ঘুষ বাণিজ্যে বেপরোয়া হয়ে উঠলেও অদৃশ্য ইশারার কারণে জিয়াবুলকে পিআইও অফিস থেকে বিতাড়িত করতে কোন ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করছেনা পিআইও মো: আমিনুল ইসলাম।
অভিযোগ রয়েছে, পিআইওকে ম্যানেজ করে শ্রমিকদল নেতা জিয়াবুল পিআইও অফিসে বেশ দাপটের সাথেই রাম রাজত্ব কায়েম করেছে। জিয়াবুল যেন পিআইও অফিসের অঘোষিত রাজা! পিআইওর আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে জিয়াবুল সরকারী অফিসের রাজস্বভুক্ত বা মাস্টার রুলের কোন কর্মচারী না হয়েও ঘুষ বানিজ্যে চরম বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।
এসব বিষয়ে জানতে পেকুয়ার পিআইও আমিনুল ইসলামকে তার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য সংযোজন করা সম্ভব হয়নি।
সূত্র: আলোকিত কক্সবাজার

শেয়ার করতে পারেন খবরটি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো বিভিন্ন খবর দেখুন

Sidebar Ads

ডাঃ কবীর উদ্দিন আহমদ

© All rights reserved © 2015 Dainik Cox's Bazar Ekattor
Theme Customized By MonsuR