1. coxsbazarekattorbd@gmail.com : Cox's Bazar Ekattor : Cox's Bazar Ekattor
  2. crander@stand.com : :
  3. coxsekttornews@gmail.com : Balal Uddin : Balal Uddin
শহরের গোদার বাঁকখালী নদী থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন, হুমকিতে ব্লক ও বেড়িবাঁধ - Cox's Bazar Ekattor | দৈনিক কক্সবাজার একাত্তর
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

শহরের গোদার বাঁকখালী নদী থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন, হুমকিতে ব্লক ও বেড়িবাঁধ

  • আপলোড সময় : শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৬৪ জন দেখেছেন
নিজস্ব প্রতিবেদক
বাঁকখালী নদী থেকে ড্রেজার মেশিনে বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে প্রভাবশালী মহল। এতে হুমকি মুখে পড়েছে ব্লক ও বেড়িবাঁধ। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে পানি উন্নয়ন বোর্ড, পরিবেশ অধিদপ্তর ও সদর উপজেলা নির্বাহী বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন কক্সবাজার পৌরসভার ০৫নং ওয়ার্ডের গোদার পাড়া এলাকার মানুষ। অভিযোগ বলা হয়, আমরা দীর্ঘদিন যাবৎ ধরে বাঁকখালী নদীর ভাঙনের ফলে হাজার হাজার মানুষ ঘর ছাড়া হয়েছে। অন্যত্রে চলেও গেছে অনেকেই। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১ বছরের মধ্যে উক্ত গোদার পাড়া এলাকা ভাঙন কবল থেকে রক্ষা করার জন্য সরকারীভাবে বেড়িবাঁধ ও ব্লক বসায়। যার দরুণ বর্তমানে এলাকায় বসবাসরত মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছি। কিন্তু বর্তমানে বালু খেকোদের আচরণে পুনরায় ভাঙনের রূপ নিতে পারে বলে আমরা ধারণা করছি। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে গোদার পাড়া এলাকায় কিছু বালু খেকোরা বড় ধরণের ড্রেজার মেশিন বসিয়ে আইনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনের চেষ্টা অব্যাহত রাখছে। এলাকায় নির্মিত ব্লক ও বেড়িবাঁধ ভাঙনের রূপ নেওয়ার কারণ হতে পারে। কিন্তু তারা এলাকার কারো কথায় তোয়াক্কা করছে না। এলাকাবাসীরা প্রতিবাদ করলে উল্টো বালু খেকোরা প্রভাবশালী হওয়ায় করে নির্মম নির্যাতন করার হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীরা কথা বলার সাহস পায় না। আমরা এলাকাবাসীরা জোর দাবী জানাচ্ছি যে, আমাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল উক্ত বাঁকখালী নদীতে ব্লক ও বেড়িবাঁধ পাওয়া। উক্ত বালু খেকোরা এলাকার পরিবেশের ভারসাম্যও বিনষ্টের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। সেই বেড়িবাঁধ ও ব্লক পাওয়া স্বত্বেও বালূ খেকোরা পূণরায় ভাঙনের দিকে নিয়ে যাওয়ার পায়তারা চালাচ্ছে বিধায় তদন্তপূর্বক উক্ত বাঁকখালী নদীতে যারা ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে, তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জোর দাবী জানান।
ডিসি৭১/এমইউএন

শেয়ার করতে পারেন খবরটি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো বিভিন্ন খবর দেখুন

Sidebar Ads

ডাঃ কবীর উদ্দিন আহমদ

© All rights reserved © 2015 Dainik Cox's Bazar Ekattor
Theme Customized By MonsuR