শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
সেন্টমার্টিনে মিয়ানমারের দুই সেনা ও ৩১ রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ ২ রোহিঙ্গা যুবকের দেহ তল্লাশিতে মিললো অস্ত্র গুলি টানা বর্ষণে কক্সবাজার শহরে জলাবদ্ধতা, পর্যটকদের দুর্ভোগ কক্সবাজার জেলা পরিষদের ১৪৬ কোটি ৮৩ লাখ টাকা বাজেট ঘোষণা কক্সবাজার আইকনিক রেলস্টেশনে নেটওয়ার্ক কোয়ালিটি টেস্ট কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন পলক আরসার জোন ও কিলিংগ্রুপ কমান্ডারসহ আটক ৩ পটিয়ায় যৌতুক নিয়ে তরুণীর আত্মহত্যা, হবু স্বামী গ্রেফতার  মহেশখালী হত্যা মামলার আসামী মাদ্রাসার সভাপতি হতে দৌঁড়ঝাপ চকরিয়ার চিংড়িজোনে বিপুল অস্ত্র ও কার্তুজসহ বাহিনী প্রধান বেলালসহ গ্রেফতার চার কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের জন্য ফ্রান্সের ১.৫ মিলিয়ন ইউরো অনুদানে ইউএনএইচসিআরের কৃতজ্ঞতা

টেকনাফে চিংড়ি ও লবণ ঘের মালিকদের নিয়ে বিজিবির মতবিনিময় সভায়ঃ মাদক ও রোহিঙ্গা রোধে সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন— অধিনায়ক

টেকনাফে চিংড়ি. লবন মালিক ও চাষীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা উপজেলা পরিষদ  মিলনায়তনে ৮ মাচ’ ৩ টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।  টেকনাফ ব্যাটালিয়ন (২ বিজিবি) ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানে অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল খালিদ মোহাম্মদ ইফতিহার এর সভাপতিত্বে সভায় অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন. উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম. উপজেলা নিবাহী অফিসার পারভেজ চৌধুরী. টেকনাফ ২ বিজিবি ক্যাপ্টেন ( অপা) এম  মুনতাসির বিল্লাহ ও টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হাফিজুর রহমান। বক্তব্য রাখেন. প্রফেসার গয়াস উদদীন ও টেকনাফ পৌরসভার প্যানেল মেয়র ২ কাউন্সিলর মাওঃ মুজিবুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন. সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের অফিসার. টেকনাফ উপজেলার চিংড়ি. লবণ মালিক. চাষী. বিজিবি ও পুলিশ। সভাপতি বিজিবি ২ অধিনায়ক বলেন. টেকনাফ একটি স্পর্শকাতর  সীমান্ত এলাকা। বিজিবি টেকনাফ সীমান্তের ৭৪ কিঃ মিটার সুরক্ষা এবং মাদক.  রোহিঙ্গা অনপ্রবেশ ও মানব পাচার রোধ সহ দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার দায়িত্বে নিয়োজিত। বিজিবির জনবল সংকট এবং বিস্তীর্ণ সীমান্ত এলাকা সুরক্ষা করা একা সম্ভব নয়। নাগরিক হিসাবে এ দায়িত্ব সবার। উখিয়া -টেকনাফ এ দুই উপজেলায় ১২ লাখ রোহিঙ্গা সহ অনিবন্ধিত প্রায় ১৭ লাখ রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করে বসবাস করছে।নাফ নদীর তীরে ভিতরে ও বাহিরে বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন চিংড়ি ও লবণ চাষ করে আসছে।  এর আড়লে চলছে মাদক পাচার ও ব্যবসা সহ  রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ। এর নিয়ন্ত্রণে বিজিবির একা দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে।  এমতাবস্থায় সবাইকে বিজিবির সাথে সহযোগিতা নিতান্ত প্রয়োজন। মাদক ও রোহিঙ্গা দমনে সীমান্ত সুরক্ষায় বিজিবি  প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করে আসছ। বিজিবি আজ থেকে বিগত এক বছরে বিজিবি মাদক বিরোধী পৃথক অভিযান পরিচালনা করে ২৭১ কোটি ৪৭ লাখ ৯০ হাজার টাকার দামে মাদক। ক্রিস্টাল মেথ আইস জব্দ করেছে। উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহি অফিসার বক্তব্যে বলেন. বিজিবির মতবিনিময় সভা এ উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়।