সংবাদ শিরোনাম :
তারানা-সাজু খাদেমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা ঈদগাঁহ থানাকে দালালমুক্ত ও জনবান্ধব করার দাবি উঠছে কক্সবাজারে নানা আয়োজনে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের মাঝখানে জিওব্যাগ, সৌন্দর্য্য হারাচ্ছে সৈকতের কক্সবাজারে মূল্যতালিকা না টাঙ্গানো, মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য মজুদের দায়ে জরিমানা ভূঁইফোড় আর নামধারী কথিত সাংবাদিকদের অপকর্মের শেষ কোথায়? দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক বিশিষ্ঠ ঠিকাদার মোহাম্মদ বেলাল উদ্দীন বেলাল করোনামুক্ত সাংবাদিক নাম ভাঙিয়ে অপকর্ম : বিব্রত পেশাদার সাংবাদিকরা এসপি মাসুদ হোসাইনকে জেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর বিদায়ী সংবর্ধনা
ইয়াবা গডফাদার ফরিদুল হক নান্নুর অপতৎপরতা বৃদ্ধি

ইয়াবা গডফাদার ফরিদুল হক নান্নুর অপতৎপরতা বৃদ্ধি

বিশেষ প্রতিবেদক:

কক্সবাজার জেলায় বহুল আলোচিত ও প্রকাশিত সত্য প্রকাশে এক একনিষ্ট “দৈনিক কক্সবাজার ৭১” প্রত্রিকার অফিসে ভাংচুর করেছে চিহ্নিত সন্ত্রাসী ফরিদুল হক (প্রকাশ নান্নু) সহ এর বাহীনি।

ফরিদুল হক (প্রকাশ নান্নু) এলাকার একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। কক্সবাজারে যতসব ভুমিদস্যু, ডাকাত, ছিনতাই, কিপনাফিং, ইয়াবা ব্যবসায়ীকে প্রত্যক্ষ-পরোক্ষভাবে সহযোগীতা, মদদ ও পৃষ্টপোষকতা দিয়ে আসছে। তার নেতৃত্বে কক্সবাজারে সকল স্তরের ভুমিদস্যু, ডাকাত, ছিনতাই, কিপনাফিং, ইয়াবা ব্যবসায়ীরা কাজ করে থাকে।

কক্সবাজারের সমগ্র অলি গলিতে তার আতংকে সাধরন মানুষ চলাফেরা করতে পারে না। নান্নু ভাই বল্লে কক্সবাজার জেলায় ভয়ে আতংকে কেপে উঠে। কক্সবাজারে সকল স্থরের ভুমিদস্যু,ডাকাত,ছিনতাই,কিপনাফিং,ইয়াবা ব্যবসায়ীরা ফরিদুল হক (প্রকাশ নান্নু) এর অশুভ ছায়ার তলে কক্সবাজারে একতরে করে যাচ্ছে হাজারো অপরাধ। তার ভয়ে কক্সবাজারের এলাকাবাসী থানায় ডায়রী করার সাহস ও পায় না। তার করা অপরাধের প্রতিবাদ করতে চাইলে মেরে ফেলা ও তুলে নেওয়ার হুমকি দেয়। চাঁদাবাজি, দালালি ও সকল স্থরের ভুমিদস্যু,ডাকাত,চিনতাই,কিপনাফিং,ইয়াবা ব্যবসায়ীর কমিশন হল আসল ব্যবসা।

তার এই সন্ত্রাসী কার্যক্রমের জন্য স্বাধীনতা হারাচ্ছে সাধরন মানুষ থেকে সাংবাদিক। ইয়াবা কারবারির বিরুদ্ধে কোন নিউজ করলে সেই নিউজের, প্রতিবাদ নিউজ দেবার জন্য বিভিন্ন হস্তক্ষেপ,জোর জাবস্তি করে থাকে। যদি তার কথা মত সংবাদিক থেকে সাধরন মানুষ কাজ না করে তবে,নিজের স্ব দল বলে আক্রমন করতে বিন্দু মাত্র দি¦ধা করে না । নিজের ক্ষমতা দেখাতে, নিত্য নতুন অমানুষিক ঘটনা ঘটান।ঠিক তেমনি ভাবে তৈরী করে আসছে কক্সবাজারের বিভিন্ন টুকাই গ্রুপ,ইয়াবা কারবারির গ্রুপ সহ মাদক সিনডিকেট।নিজের ক্ষমতা দেখাতে এসব গ্রুপকে ব্যবহার করে থাকে।বিভিন্ন স্কুল,কলেজের ছাত্রদের টাকার লোভ দেখিয়ে এসব দেশ বিরুধী কাজে জড়িয়ে দেন।ফলে ন®ট করে হাজারো ফুলের ভবিষ্যৎ।দূ-স্বপ্ন হয়ে যায় হাজারো মা-বাবার স্বপ্ন ।গত কাল বিকাল ৩ টা ৫৮ মিনিটের সময় দৈনিক কক্সবাজার ৭১ অফিসে আক্রমন করে ফরিদুল হক (নান্নু) ও এর সহযোগী। গেইটের দারোয়ানকে হুমকি ও ধাক্কা দিয়ে, বেলাল কই ? বেলাল কই ? বলে অফিসে ঢুুকে । ঢুকার সময় দরজায় হাতুরি দিয়ে বারি মেরে দরজা ভেঙ্গে ফেলে। তার পর অফিসে ঢুকে অফিস সহকারি মোহাম্মদ আরিফ কে হাতুরির বারি দিতে চাইলে আরিফ পালিয়ে একটি কক্ষে ঢুকে যাই।তার পর সন্ত্রাসী নান্নু,ও তার সহযোগীর হাতে থাকা হাতুড়ি দিয়ে অফিসে রক্ষিত মূল্যবান জিনিসপত্র ভাংচুর করার লক্ষ্যে এলোপাতাড়ি বারি মারিয়া ম্যানেজারের রুমের পূর্ব দেয়ালে লাগানো ইকো ব্র্যান্ডের কালো রংয়ের ৪৩ ইঞ্চি ১টি এলইডি টিভি, স্যামসান ব্র্যান্ডের কালো রংয়ের ১৯ ইঞ্চি ১টি কম্পিউটার মনিটর, ডিজিটাল ইলেক্ট্রনিক ঘড়ি ১টি এবং সম্পাদক ও বিজ্ঞাপন ম্যানেজারের টেবিল গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে।
পিয়ন আরিফুল ইসলামসহ দারোয়ানের শোরচিৎকারে আশে পাশের্^র লোকজন আগাইয়া আসিলে নান্নু ও তার দলবল নিয়ে পালাইয়া যাই। প্রত্যক্ষদর্শী দৈনিক কক্সবাজার ৭১ এর অফিস সহকারি আরিফুল ইসলাম বলেন,“গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৩ টা ৫৮ মিনিটের সময় ফরিদুল হক নান্নু ও অচেনা ৪ জন সহ হঠাৎ অফিসে ঢুকতে বেলাল কই ? বেলাল কই ? বলে, হাতুরি দিয়ে দরজা ভেঙ্গে পেলে।এর পর আমি বাঁধা দিতে চাইলে ফরিদুল হক নান্নু আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হাতুরি দিয়ে মারতে চাইলে আমি একটি রুমে ঢুকে দরজা লক করে দিই।এর পর সন্ত্রাসী নান্নু নিজের ইচ্ছা মত অফিসের দরজা ,টেবিল,চেয়ার,আলমারি,কম্পিউটার,টেলিফোন,ঘড়ি ,এসি ও টেলিভিশন ভাংচুর করে । আমি তখন চিৎকার করি ও সম্পাদক বেলাল স্যার কে কল দিই। আমার ও দারোয়ানের চিৎকারে আশে-পাশের লোক জন জড়ো হলে স্ব-দল বলে নান্নু পালিয়ে যায়।” দৈনিক কক্সবাজার পত্রিকার স¤পাদক বেলাল বলেন,“ দৈনিক কক্সবাজার ৭১ সত্য প্রকাশে একান্ত আদর্শিক কলম।দীর্ঘ ছয় বছর যাবৎ সত্য,কক্সবাজারের মানুষের দুঃখ-দূর্দশা,সমাজের অন্যায়-অবিচার প্রকাশ করে ,দূঃসাহসীকতার পরিচয় দিয়ে কক্সবাজারের মানুষের বিশ^াস ও ভালোবাসা অর্জন করে আসছে। ২০১৮ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত মাদকে জিরো ট্রলারেন্স বাস্তবায়নের লক্ষে বিভিন্ন ভাবে প্রশাসন কে সহযোগীতা করে আসছে।এরই ধরাবাহিকতায় এক কোটি ইয়াবা লুঠের ঘটনায় টেকপাড়ার মিজান ও এর সাথে জড়িত ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কে নিয়ে বেশ কয়েক টি দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পত্রিকায় নিউজ প্রকাশ করে।ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আশ্রয় ও পশ্রয়দাতা ফরিদুল হক (নান্নু) পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ প্রকাশ করতে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি ও হুমকি দিয়ে আসছে। বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবা ব্যবসায়ী মিজান মরা গেলে ,নান্নু দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পত্রিকায় নিউজ প্রকাশ করছে বলে মিজান কে মেরে ফেলা হয়েছে এমন দাবি করে আসছে।এরই ফল স্বরুপ আমাকে (সম্পাদক বেলাল) মেরে ফেলার বারে বারে হুমকি দিয়ে আসছে।এর পর জুলাই ৩০ তারিখ ২০২০ ইং দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পত্রিকায়“আলোচিত ইয়াবা সম্রাট কিউবা রাখাইন এখনো ধরাছোয়ার বাইরে ” শীর্ষক শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়।এই প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করতে চাইলেন ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আশ্রয় ও পশ্রয়দাতা ফরিদুল হক (নান্নু)।
আমি “আলোচিত ইয়াবা সম্রাট কিউবা রাখাইন এখনো ধরাছোয়ার বাইরে ” শীর্ষক শিরোনামের প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ প্রকাশ করতে না চাইলে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এই সংবাদের প্রধান কিউবা রাখাইন ও মংসুইপ্রু ( হেরী ) একে অপরের আপণ ভাই। তারা দুজনই নাম করা ইয়াবা ব্যবসায়ী । কিউবা রাখাইরন এখন মায়ারমারে আছেন । তার সকল সহায় সম্পদ নান্নু দেখা শুনা করে । মংসুইপ্রু হেরী) বিশাল বাড়ি,গাড়ির মালিক । তারা দুই ভায়ের ইয়াবা ব্যবসায়ের মূল পরিচালক হলেন ফরিদুল হক নান্নু । হেরীর এর সাথে নান্নুর চৌফলদন্ডী ব্রীজের পাশে নতুন একটি পেট্রোল পাম্প করার জন্য খুটি ও গেড়েছে। তারা দুই ভাইয়ের সহযোগীতায় ও নান্নুর পরিচালনায় এই ইয়াবা ব্যবসায় বহু দিন ধরে করে আসছে।নান্নুর দুটি মাছ ধরার বোট ও একটি কার (ঢাকা মেট্রো ক-১১-৩১৪১) ব্যবহার করে ইয়াবা টেকনাফ থেকে নেয়া-আসা করে । তাই ইয়াবা ব্যবসায়ীদের বাচাঁতে হুমকি দিয়ে আসছে।তার হুমকি আমার অনড় অবস্থার পরিবর্তন করতে না পেরে, সে (নান্নু) আমাকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে আমার “দৈনিক কক্সবাজার ৭১” পত্রিকার অফিসে আক্রমন করে।াআমাকে না পেয়ে আমার অফিস সহকারি মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম (১৪) কে হত্যা করার চেষ্টা করে । হত্যা করতে না পেরে আমার অফিসের দরজা,টেবিল,চেয়ার, আলমারি,কম্পিউটার, টেলিফোন,ঘড়ি ও টেলিভিশন ভাংচুর করে ।
ঘটনার পর সে আমার ব্যাক্তিগত মোবাইল ফোনে কল দিয়ে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে । মেরে ফেলার জন্য আমার বাসার ও অফিসের সামনে তার ব্যাক্তিগত কার নিয়ে স্বশরীরে এসে কল করে হুমকি দিচ্ছে।তার সব প্রমান আমার সি সি টিবি বিডিওতে আছে।” তিনি আরো বলেন“আমি মুজিব সৈণিক ।দেশের জন্য,দশের জন্য মরতে আমি সর্বদা প্রস্তুত। ২০১৮ সালে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত মাদককে জিরো ট্রলারেন্স বাস্তবায়নে লক্ষে আমি আমার পত্রিকা দৈনিক কক্সবাজার শেষ নিশ^াস পর্যন্ত কাজ করে যাব ইনশাহআল্লাহ। কুখ্যাত সন্ত্রাসী ফরিদুল হক (নান্নু) এর এমন অপকর্ম-কমকান্ডের ন্যার্য বিচার পেতে প্রশাসন সহ সকল সাংবাদিক ভাইদের সহযোগীতা কামনা করছি।কক্সবাজার সদর মডেল থানায় ফরিদুল হক নান্নু সহ তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করছি। সংবাদিকদের নিরাপত্তার র্স¦াতে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্ত মৃলক শাস্তির আশা করছি।” এমন নিন্দা জনক ঘটনায় চরম উদবেগ ও উত্তেজনা চলছে কক্সবাজার সকল স্তরের সাংবাদিক মহলে।কক্সবাজার জেলার সকল সংবাদিক গন নিজের নিরাপত্তা কথা ও দৃষ্টান্ত মৃলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।কক্সবাজারের সংবাদিক মহল তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।অপরদিকে কক্সবাজার- রামুর সংসদ সদস্য সায়মুম সরওয়ার কমল , কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন ও সুশীল সমাজ দৈনিক কক্সবাজার ৭১ এর সন্ত্রাসী হামলার তীব্য নিন্দা প্রকাশ করেছে।
দৈনিক কক্সবাজার ৭১ এর এমন দূর্দিনে সকল সাধরন মানুষ থেকে রাজনীতিবিদ, সমাজকর্মী, সাংবাদকর্মী, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও সদর থানার সকল কর্মকর্তাকে দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও মোবারকবাদ। আপনাদের এই ঋন দৈনিক কক্সবাজার ৭১ এর পরিবার কখনো ভুলতে পারবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৩৩,৪৮৫,৫৮৬
সুস্থ
২৪,৭৯৫,০৯৬
মৃত্যু
১,০০৪,৭৯৪
সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
২,৯৪৯
৩৭
২,৮৬২
১৩,৪৮৮
সর্বমোট
১৭৮,৪৪৩
২,২৭৫
৮৬,৪০৬
৯০৪,৫৮৪

একাত্তর পত্রিকার প্রতিনিধি সভা

dainikcoxsbazarekattor.com © All rights reserved