সংবাদ শিরোনাম :
দলীয় প্রতীকেই স্থানীয় সরকার নির্বাচন কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন, শোকাহত মানুষের ঢল কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে রোড ডিভাইডার স্থাপনের দাবি মুশতাক আহমেদের মৃত্যুতে ১৩ দেশের রাষ্ট্রদূতের উদ্বেগ প্রকাশ কক্সবাজারে পিকআপের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত আতঙ্কে বুবলি, গাড়ি চাপা দিয়ে মারার চেষ্টা নায়িকাকে বায়তুশ শরফ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা তাহেরুল ইসলামের জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল তিনদিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে হেরে গেলেন কাউন্সিলর কাজী মোরশেদ আহমদ বাবু অপরাধীদের কাছে জিম্মি বিসিক এলাকার সাধারণ মানুষ দৈনিক কক্সবাজার ৭১ পত্রিকা অফিস পরিদর্শনে কক্সবাজার জেলা ছাত্রদল
রেল চলবে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার

রেল চলবে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার

কক্সবাজার ৭১ ডেস্ক:
পূর্ণ গতিতে চলছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন তৈরির কাজ। এরই মধ্যে বহুল প্রত্যাশিত এ প্রকল্পের সার্বিক কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৪৭ শতাংশ। কাজের এ ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী বছরের জুনের মধ্যেই রেল চলাচলের উপযোগী হবে এ রুটে। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন সম্প্রসারণ প্রকল্পে পরিচালক মফিজুর রহমান বলেন, ‘করোনা প্রাদুর্ভাবের পর বর্ষাকাল এ প্রকল্পের কাজের গতিতে বড় ধরনের ধাক্কা দেয়।
যদিও গত নভেম্বর থেকে পুরোদমে কাজ চলছে। ডিসেম্বর পর্যন্ত কাজের সার্বিক অগ্রগতি হয়েছে ৪৭ শতাংশ। আশা করছি আগামী বছরের জুনের মধ্যেই রেল চলাচলের উপযোগী হবে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন। ’ জানা গেছে, রেললাইন তৈরির জন্য মাটি ভরাট কাজের অগ্রগতি হয়েছে প্রায় ৬৫ শতাংশ। প্রকল্পের ৯টি স্টেশন বিল্ডিংয়ের মধ্যে ৫টি নির্মাণ কাজ হয়েছে প্রায় ২০ শতাংশ। ১৪৫টি কালভার্টের মধ্যে ৭০টি কাজ শেষ হয়েছে। ৩০টি কালভার্টের কাজ চলছে দ্রুত গতিতে।
৩৯টি ব্রিজের মধ্যে ৩০টির কাজ শেষ হয়েছে ৮০ শতাংশ। কক্সবাজারের নির্মাণাধীন সর্বাধুনিক স্টেশন আইকনিক বিল্ডিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে ২০ শতাংশ। বনাঞ্চলের ভিতরে হাতি চলাচলের জন্য তৈরি করা হচ্ছে ২টি আন্ডারপাসের কাজ শেষ হয়েছে। ওভারপাস তৈরির কাজও চলছে দ্রুততার সঙ্গে।
প্রসঙ্গত, সারা দেশের সঙ্গে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের যোগাযোগব্যবস্থা সহজ করতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজারের সরাসরি রেল যোগাযোগ স্থাপনের জন্য রেললাইন নির্মাণের উদ্যোগ নেয় সরকার। বাংলাদেশ সরকার ও এডিবি যৌথ অর্থায়ন করছে প্রকল্পটিতে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ১৮ হাজার ৩৪ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। সমীক্ষা শেষে ২০১০ সালের ৬ জুলাই নতুন রেললাইন স্থাপনের জন্য ডিপিপি অনুমোদন দেয় সরকার। ২০১৮ সালের মার্চে প্রকল্পের কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইনে চলাচলের উপযুক্ত হলে তা হবে দেশের যোগাযোগব্যবস্থার জন্য যুগান্তকারী প্রকল্পগুলোর একটি।
এতে করে ঢাকা-চট্টগ্রামের সঙ্গে কক্সবাজারের যাতায়াত খুবই সহজ হবে। এতে করে এ অঞ্চলের মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থা আরও উন্নতি হবে।৩৩৩
বৃহস্পতিবার এইচএসসির ফল প্রকাশের সম্ভাবনা
চলতি সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারি হলেই আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করা হবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বিশেষ পরিস্থিতিতে ফলাফল প্রকাশ করার জন্য রাষ্ট্রপতি কর্তৃক অধ্যাদেশ জারির প্রয়োজন হয়। সোমবার (৪ জানুয়ারি) মন্ত্রীপরিষদের বৈঠকে ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ জারির বিষয়টি উত্থাপিত হবে। এরপর রাষ্ট্রপতির নিকট প্রয়োজনীয় নথিপত্র পাঠানো হবে। ৫ অথবা ৬ জানুয়ারি অধ্যাদেশ জারি করবেন মহামান্য রাষ্ট্রপতি। এরপর ফল প্রকাশে কোনো বাধা থাকবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শিডিউল পেলে আগামী বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে।
ফল প্রকাশের বিষয়ে এইচএসসির গ্রেড মূল্যায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রস্তুত করা আছে। কিন্তু অধ্যাদেশ জারি সংক্রান্ত জটিলতার জন্য ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি। রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করার পর ফলাফল প্রকাশ করা হবে।
তিনি আরও বলেন, আশা করছি আগামী বুধবার (৬ জানুয়ারি) মহামান্য রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করবেন। এরপর ফল প্রকাশ করব আমরা। অধ্যাদেশ জারির পর ফলাফল প্রকাশের ক্ষেত্রে কোনো বাধা থাকবে না আর।
এর আগে গত মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, বিশেষ পরিস্থিতিতে ফলাফল প্রকাশের জন্য আইনি প্রক্রিয়া হিসেবে রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারি করতে হবে। রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারি করার পর ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

একাত্তর পত্রিকার প্রতিনিধি সভা

x